পাতা

প্রকল্প

                 দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মানবিক সহায়তা কর্মসূচীঃ

 

*        মানবিক সহায়তা কর্মসূচীর আওতায় বর্তমানে চলমান সহায়তা সমুহঃ

 

১.       দুঃস্থদের খাদ্য সহায়তা (ভি জি এফ)

২.      নগদ অর্থ সহায়তা (জি আর)

৩.      খাদ্যশস্য সহায়তা (জি আর)

৪.       শীত বস্ত্র সহায়তা (জি আর)

৫.      ঢেউটিন সহায়তা (জি আর)

৬.      গৃহ বাবদ নগদ মঞ্জুরী সহায়তা (টাকা)

 

 

*        মানবিক সহায়তার লক্ষ-উদ্দ্যেশ্য, ধরন, সহায়তার ক্ষেত্র/ প্রাপ্তির যোগ্যতা ও সময়/পরিমাণঃ

 

১. দুঃস্থদের জন্য খাদ্য সহায়তা (ভি জি এফ) কর্মসূচী

লক্ষ্য-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তার ক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

·দুঃস্থ, অতিদরিদ্র জনসাধারণ, প্রাকৃতিক দুর্যোগে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ/দুর্দশাগ্রস্থ ব্যক্তি/পরিবার ও জনসাধারণ কে খাদ্য সহায়তা প্রদান করার মাধ্যমে দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস করা।

খাদ্য সামগ্রী

(চাল/গম)

দুঃস্থ ও অতিদরিদ্র ব্যক্তি/পরিবার যারা স্বাভাবিকভাবে দু’বেলা খাদ্য যোগাতে পারে না।

প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ/দুর্দশাগ্রস্থ ব্যক্তি/পরিবার যারা চরমভাবে খাদ্য ও অর্থ সংকটে পতিত।

>পরিবার প্রতি মাসিক ১০-৩০ কেজি, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত সময় পর্যমত্ম।

২. নগদ অর্থ সহায়তা (জি আর) কর্মসূচী

লক্ষ-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তার ক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

·দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার অথবা দুর্যোগে/দুর্ঘটনায় আহত/নিহত ব্যক্তির অস্বচ্ছল পরিবারকে তাৎক্ষনিকভাবে নগদ সহায়তা প্রদান।

নগদ অর্থ এবং বিশেষ বিবেচনায় খাদ্য সামগ্রী

দুর্যোগ  ও দুর্ঘটনায় আহত বা মৃত ব্যক্তির অস্বচ্ছল পরিবার, মৃত ব্যক্তির দাফন/সৎকার বা আহত ব্যক্তির চিকিৎসা করাতে অর্থ সংকটে পতিত, দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার যারা চরম অর্থ সংকটে পতিত।

>মৃত ব্যক্তির পরিবার প্রতি সর্বনিমণ ১০,০০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা।

>আহত ব্যক্তির চিকিৎসার জন্য সর্বনিমণ ৫,০০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১৫,০০০ টাকা।

>প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার প্রতি সর্বোচ্চ ৭,৫০০ টাকা।

·প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান সংস্কার / মেরামত কাজে সহায়তা।

নগদ অর্থ

প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান যেসবের সংস্কার / মেরামত করা অত্যমত্ম প্রয়োজন।

>প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিষ্ঠান প্রতি সর্বোচ্চ ২০,০০০ টাকা তবেবিশেষ বিবেচনায় মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনক্রমে ৫০,০০০ টাকা প্রদান করা যেতে পারে।

 

৩. খাদ্যশস্য সহায়তা (জি আর) কর্মসূচী

লক্ষ্য-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তার ক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ এবং অসহায় ব্যক্তি ও পরিবারকে তাৎক্ষনিকভাবে খাদ্য সাহায্য।

খাদ্যসামগ্রী

(চাল/গম)

বিভিন্ন দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ এবং দুঃস্থ ও অস্বচ্ছল ব্যক্তি/পরিবার

>ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার প্রতি এককালিন ১০-৩০ কেজি।

প্রাকৃতিক / মনুষ্য সৃষ্ট দুর্যোগ ও দুর্ঘটনায় নিহত/আহত ব্যক্তির অস্বচ্ছল পরিবারকে বিশেষ বিবেচনায় খাদ্য সহায়তা প্রদান।

খাদ্যসামগ্রী

(চাল/গম)

দুর্যোগে আহত বা মৃত ব্যক্তির অস্বচ্ছল পরিবার

>প্ররিবার প্রতি বিশেষ বিবেচনায় সর্বোচ্চ ২০০ কেজি (মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন সাপেক্ষে)।

সরকারী/বেসরকারী এতিমখানা/লিলস্নাহবোর্ডিং/শিশুশদন/অনাথআশ্রম/মুসাফিরখানা/বিভিন্নধর্মিও অনুষ্ঠানে আগতদের আহার্য বাবদ সহায়তা প্রদান।

খাদ্যসামগ্রী

(চাল/গম)

সরকারী/বেসরকারী এতিমখানা/লিলস্নাহবোর্ডিং/শিশুশদন/অনাথআশ্রম/মুসাফিরখানা পরিচালনা

>বার্ষিক সর্বোচ্চ ৫.০০ মেঃ টন।

এককালিন অথবা সরকার কর্তৃক বিভাজন অনুযায়ী।

বিভিন্ন ধর্মিও অনুষ্ঠান (ইছালে ছওয়াব, ওরশ মাহফিল, নামযজ্ঞ, কঠিন চিবরদান ও অন্যান্য ধর্মিও অনুষ্ঠান ইত্যাদি) আয়োজন (আগতদের আহার্য বাবদ)।

>বার্ষিক সর্বোচ্চ ৩.০০ মেঃ টন।

এককালিন অথবা সরকার কর্তৃক বিভাজন অনুযায়ী।

৪. শীত বস্ত্র সহায়তা (জি আর)কর্মসূচী

লক্ষ্য-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তার ক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

আতি দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে শৈত্য প্রবাহ/শীতের প্রকোট হতে রক্ষাকরা।

কম্বল/চাদর/সুয়েটার/জ্যাকেট/গরম টুপি/মাফলার ও অন্যান্য শীতবস্ত্র

সাধারনভাবে দুঃস্থ ও অতিদরিদ্র পরিবার/ব্যক্তি যারা প্রয়োজনীয় শীতবস্ত্র কিনতে পারে না এবং শীতপ্রধান এলাকার শীতার্ত ব্যক্তি/পরিবার, যাদের পর্যাপ্ত শীতবস্ত্র নেই (তবে গত ৫ বছরে সরকার থেকে যেসব ব্যক্তি/পরিবার কম্বল/চাদর গ্রহণ করেছে তারা কম্বল/চাদর পাওয়ার অযোগ্যবলে বিবেচিত হবে)।

>প্রতি ৫ বছরে একবার অথবা সরকার কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী,

 

>কম্বল/চাদরের ক্ষেত্রে ব্যক্তি পর্যায়ে ১ টি এবং পরিবার প্রতি সর্বোচাচ ২ টি, অন্যান্য শীতবস্ত্র ব্যক্তি পর্যায়ে ১ টি এবং পরিবার প্রতি সর্বোচাচ ৩ টি।

৫. ঢেউটিন সহায়তা (জি আর)কর্মসূচী

লক্ষ্য-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তার ক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা, অসহায় প্রতিবন্ধি অথবা অতিদরিদ্র্ /দুঃস্থ ব্যক্তির গৃহ নির্মাণ/পুনঃ নির্মানের সহায়তা করা।

ঢেউটিন/সি আই সীট

দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা, অসহায় প্রতিবন্ধি অথবাঅতিদরিদ্র্ /দুঃস্থ ব্যক্তি যাদের গৃহ নির্মাণ/পুনঃ নির্মানে সহায়তা প্রয়োজন।

>পরিবার প্রতি পুনঃনির্মানে সর্বোচ্চ ২

বান্ডিল, নির্মানের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৩ বান্ডিল।

>১০ বছরে একবার অথবা সরকারের   সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।

কালবৈশাখী/ঘুর্ণিঝড়/টর্ণেডো/অগ্নিকান্ড ও বিভিন্নপ্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ এবং সম্পুর্ণভাবে ধ্বংশপ্রাপ্ত অস্বচ্ছল পরিবারের বাসগৃহের /স্ব-নির্মিত দোকানের ও ÿুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মেরামত/পুনঃনির্মানে সহায়তা।

ঢেউটিন/সি আই সীট

অস্বচ্ছল পরিবার যাদের বাসগৃহ/স্ব-নির্মিত দোকান ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কালবৈশাখী/ঘুর্ণিঝড়/টর্ণেডো/অগ্নিকান্ড/বন্যা ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ এবং সম্পুর্নভাবে ক্ষতিগ্রস্থ

>আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ বাসগৃহ/স্ব-নির্মিত দোকান ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মেরামতে সর্বোচ্চ ২ বান্ডিল এবং সম্পুর্ণ ক্ষতিগ্রস্থ বাসগৃহ/স্ব-নির্মিত দোকান ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মেরামতে সর্বোচ্চ ৩ বান্ডিল এবং মন্ত্রণালয়ের বিশেষ বিবেচনায় সর্বোচ্চ ৫ বান্ডিল।

>১০ বছরে একবার অথবা সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।

বিশেষ বিবেচনায় বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিষ্ঠান যেমন স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/গীর্জা/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠানে গৃহ নির্মাণ ও পুনঃনির্মানে সহায়তা করা।

ঢেউটিন/সি আই সীট

বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ অস্বচ্ছল প্রতিষ্ঠান যেমন স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/গীর্জা/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান

>প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষা/ধর্মিও প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ ১৫ বান্ডিল, অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ ৭ বান্ডিল এবং বিশেষ বিবেচনায় সর্বোচ্চ ১৫ বান্ডিল।

>১০ বছরে একবার অথবা সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।

৬. গৃহ বাবদ নগদ মঞ্জুরী সহায়তা (টাকা) কর্মসূচী

লক্ষ্য-উদ্দ্যেশ্য

সহায়তার ধরন

সহায়তারক্ষেত্র/প্রাপ্তির যোগ্যতা

সময়/পরিমাণ

দুর্যোগে সম্পুর্ণ/আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ ঘরবাড়ী, শিক্ষাও ধর্মীও প্রতিষ্ঠান যেমন, স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/গীর্জা/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠানের নির্মাণ/মেরামতের জন্য নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান

নগদ অর্থ

দরিদ্র ও দুঃস্থ পরিবার বা ব্যক্তি যার বাসগৃহ দুর্যোগের কারণে সম্পুর্ণ/আংশিক ÿতিগ্রস্থ বা দুর্যোগে সম্পুর্ণ/আংশিকÿতিগ্রস্থ শিক্ষা/ধর্মীও প্রতিষ্ঠান যেমন, স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/এতিমখানা/মসজিদ/মন্দির/গীর্জা/প্যাগোড়া/কিয়াং/পাঠাগার ও অন্যান্য নিবন্ধিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান যেসবের নির্মাণ  মেরামতের জন্য আর্থিক সাহায্য প্রয়োজন।

·দুর্যোগে আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ ঘরবাড়ীর ক্ষেত্রে পরিবার প্রতি সর্বোচ্চ ১০,০০০ টাকা, সম্পুর্ণ ক্ষতিগ্রস্থ ঘর বাড়ীর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ২০,০০০ টাকা এবং ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০,০০০ টাকা (তবে ক্ষতির গুরম্নত্ব  বিবেচনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনক্রমে ব্যক্তি পর্যায়ে সর্বোচ্চ ২৫,০০০ টাকা এবং প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৭৫,০০০ টাকা)।

· ১০ বছরে একবার অথবা সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।

২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরের আরও বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন


Share with :

Facebook Twitter